মেনু নির্বাচন করুন

মামলার আবেদন

 

 

বরাবর,

       চেয়ারম্যান

       মধ্যনগর ইউনিয়ন পরিষদ কার্যালয়                              

       ধর্মপাশা, সুনামগঞ্জ।

                                                                                   

বিষয়ঃ জোর পূর্বক টাকা আত্বসাত করার পায়তারা  প্রসঙ্গে।

 

বাদীঃ ১. জজ্ঞেশ্বর তালুকদার, ২. পিতা মৃতঃ উমেশ তালুকদার, সাং করম্নয়াজান, থানাঃ মধ্যনগর, উপজেলাঃ ধর্মপাশা, জেলাঃ সুনামগঞ্জ।

 

বিবাদীঃ ১. সুখময় সরকার, পিতা মৃতঃ রাস গোবিন্দ সরকার সাং জমশেরপুর, থানাঃ মধ্যনগর, উপজেলাঃ ধর্মপাশা, জেলাঃ সুনামগঞ্জ।

 

সাক্ষীঃ ১. আঃ গফুর কাছু পিতা মৃতঃ মশ্রব আলী ২. পিকলু সরকার  পিতাঃ বিজয় সরকার, ৩. মোঃ ইদ্রিছ আলী  পিতা মৃতঃ আবুচান মিয়া সর্ব সাং করম্নয়াজান, থাানাঃ মধ্যনগর, উপজেলাঃ ধর্মপাশা, জেলাঃ সুনামগঞ্জ।

 

­ জনাব,

 

      সবিনয় বিনীত নিবেদন এই যে, আমি  নিন্ম  স্বাক্ষরকারী এই মর্মে আবেদন করিতেছি যে, বিবাদী আমার বেয়াই বটে। বিগত আগাম বন্যায় ফসল নষ্ট হওয়ার পর আমার একটা হালের বলদ গরম্ন ছিল, তখন আভাব মোকাবেলায় বলদটি বিক্রি করার জন্য বিশ্বাস করে আমার বেয়াই অর্থাৎ বিবাদীকে নিয়ে বারহাট্টা উপজেলার নইহাটি বাজারে যাই।এক পর্যায়ে বলদটি ৩৩,০০০/- টাকা বিক্রি করা হয়। টাকা নেওয়ার সময় বিশ্বাস করে আমার বেয়াইকে গুনে নিতে বলি উনি  ৩৩,০০০/- টাকার মধ্যে ৩২,০০০/- হাজার তিনির হাতে নেন আর ছুট খরচ বাদে বাকী ৮৫০/- টাকা আমার হাতে নেই।  তিনি  টাকাটা পকেটে নিয়ে একটি দোকানের কাছে বসাছিলেন। আমি বেয়াইকে বললাম তরকারী কিনে নিয়ে আসি ততক্ষনে আপনি এখানে বসেন। তরকারি নিয়ে আসা মাত্রই বেয়াই আমাকে বলতেছে সর্বনাশ হয়ে গেছে। ৭,০০০/- টাকা রেখে বাকী ২৫,০০০/- টাকা চুরে নিয়ে গেছে। আমি প্রথমে হাসি তামশা মনে করছি। তখন উনি বলে সত্যি সত্যিই টাকা নিয়ে গেছে। আমি তখন বললাম চুরে নিলে সব টাকাই নিয়ে যেত। ৭,০০০/- টাকা উনার হাতে থাকায় আমার সন্ধেহ তিনিই টাকাটা আত্বসাত করেছেন। বাড়িতে আসার পর অনেক চেষ্টা করা হলেই তিনি বিষয়টি গুরম্নত্ব দিচ্ছেন না। এমতাবস্থায় আপনার বরাবর নিবেদন এই যে, সামাজিক ন্যায় বিচারের স্বার্থে  আমার বিষয়টি সুরাহ করে দেওয়ার জন্য সবিনয় আবেদন করিতেছি।

 

       অতএব, হুজুর সমীপে প্রার্থনা যে, উপরোক্ত বর্ননামোতাবেক  সুবিবেচনা পূর্বক আমাদের বিষয়টি সুবিচার করিতে মহোদয়ের সদয় মর্জি হয়।

 

তারিখ ১৩/০৭/২০১৭ ইং

                                                                                                                 নিবেদক

 

 

 

 

 

 

 

 

গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার

মধ্যনগর ইউনিয়ন পরিষদ কার্যালয়

ধর্মপাশা, সুনামগঞ্জ।

..........................................................................................................................................................................................................

নোটিশঃ

বিবিধ মোকদ্দমা নং

তারিখঃ....../...... /২০১৭ইং।

 

নোটিশ জারীর তারিখঃ ......./......./২০১৭ইং।

 

বাদীঃ ১. জজ্ঞেশ্বর তালুকদার, ২. পিতা মৃতঃ উমেশ তালুকদার, সাং করম্নয়াজান, থানাঃ মধ্যনগর, উপজেলাঃ ধর্মপাশা, জেলাঃ সুনামগঞ্জ।

 

বিবাদীঃ ১. সুখময় সরকার, পিতা মৃতঃ রাস গোবিন্দ সরকার সাং জমশেরপুর, থানাঃ মধ্যনগর, উপজেলাঃ ধর্মপাশা, জেলাঃ সুনামগঞ্জ।

 

        যেহেতু উপরোক্ত বাদী পক্ষ আপনি বিবাদী পক্ষের বিরোদ্ধে অত্র অফিসে অভিযোগ আনয়ন করিয়াছেন যে, আপনি  বিবাদী  বাদীর গরু বিক্রি করার টাকা জোড় পূর্বক আত্বসাত করার পায়তারা করিয়া আসিতেছেন।

 

        সেহেতু বাদী পক্ষের অভিযোগের জবাবে প্রয়োজনীয় সাক্ষী প্রমান  ও কাগজ পত্র সহ আগামী ............................ইং তারিখ রোজঃ ......................... সকাল/বিকাল .......... ঘটিকার সময় অত্র মধ্যনগর ইউপি কার্যালয়ে উপস্থিত থাকিতে বলা হইল। অন্যতায় আপনার বিরোদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

 

 

 

                                                                              (প্রবীর বিজয় তালুকদার)

                                                                                চেয়ারম্যান

                                                                                ৪নং মধ্যনগর ইউনিয়ন পরিষদ

                                                                               ধর্মপাশা, সুনামগঞ্জ।

 

 

 

 

 (দুটি সমন্তানের বেশী নয়, একটি হলে ভাল হয়।) (আপনার শিশুকে স্কুলে পাঠান।)

(মধ্যনগর ইউনিয়ন ডিজিটাল সেন্টারে আসেন, স্বল্প মূল্যে তথ্য ও প্রযুক্তি  বিষয়ে সেবা নিন। ধন্যবাদ।)